তাসকিনকে যেমন দেখলেন প্রধান নির্বাচক

3090
তাসকিনকে যেমন দেখলেন প্রধান নির্বাচক

বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খানের রুমে বসে একদৃষ্টিতে তাসকিন আহমেদের বোলিং দেখলেন মিনহাজুল আবেদীন। বড় চোট কাটিয়ে প্রিমিয়ার লিগে ফিরেছেন, তাসকিন কেমন করেন, সেদিকে প্রধান নির্বাচকের গভীর দৃষ্টি।

অন্য সময় হলে তাসকিনের ওপর হয়তো এই "দৃষ্টি" থাকত না। এবার যে প্রেক্ষাপট ভিন্ন। কদিন পর বিশ্বকাপ দল ঘোষণা। সেই দলে তাসকিনের থাকা-না থাকা নিয়ে কদিন ধরে হচ্ছে নানা আলোচনা। তাঁর সম্ভাবনা নিয়ে সাংবাদিকেরা জানতে চাইলে নির্বাচকেরা বারবার একটা কথাই বলেছেন, "সে তো কোনো খেলাতেই নেই।" তাসকিনের তাই তাড়া ছিল, দল চূড়ান্ত হওয়ার আগেই দু-একটি ম্যাচ খেলে নিজেকে শতভাগ ফিট প্রমাণ করা। তা আজ প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে ২৪ বছর বয়সী পেসারের বোলিং কেমন দেখলেন প্রধান নির্বাচক?

এই ম্যাচে তাসকিনের পারফরম্যান্সের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিল ফিটনেসে তিনি উতরে যেতে পারছেন কি না। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে উত্তরার বিপক্ষে ৫ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকলেও মিনহাজুল ইতিবাচকভাবেই দেখছেন তরুণ পেসারের ফেরাটা। প্রধান নির্বাচক বললেন, "ওর রানিং ঠিক আছে। রানআপে কোনো সমস্যা নেই। অনেক দিন পর মাঠে নেমেছে। ছন্দ ফিরে পাওয়া সময়ের ব্যাপার। প্রথম ম্যাচ খেলল (চোট কাটিয়ে), মাত্র শুরু করেছে। সামনে সুপার লিগের ম্যাচ আছে। আমার মনে হয় পুরোপুরি ফিটনেস ফিরে পেতে কিছু সময় লাগতে পারে। যেহেতু ওর প্রতিভা নিয়ে আমাদের কোনো চিন্তা নেই। দেখি সুপার লিগে কেমন করে।"

বড় একটা চোট কাটিয়ে ছন্দ ফিরে পেতে সব ক্রিকেটারেরই সময় লাগে। তাসকিনেরও লাগছে। বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাবেন কি না, এসব ভাবনায় হয়তো অদৃশ্য একটা চাপও তাঁকে ঘিরে ধরেছে। সেই চাপে আজ প্রথম বলেই বাউন্ডারি খেয়েছেন, ফেরার ম্যাচে একটু ব্যয়বহুল বোলিং করে ফেলেছেন। তবে তাঁর রানিং নিয়ে যে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন প্রধান নির্বাচক, এটি হয়তো আত্মবিশ্বাসী হতে সহায়তা করবে তাসকিনকে।

তাসকিনের ফেরার ম্যাচে রূপগঞ্জ বড় জয়ই পেয়েছে, উত্তরাকে ৯ উইকেটে হারিয়েছে। ১১ ম্যাচে ১০ জয়ে ২০ পয়েন্ট নিয়ে সুপার লিগে পা রাখছে রূপগঞ্জ।